আজ শুক্রবার | ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
| ২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ৭ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী | সময় : রাত ১০:১৯

মেনু

শরীয়তপুরে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী সুমন নিহত

বন্দুক যুদ্ধে

শরীয়তপুরে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী সুমন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক
বুধবার, ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮
৯:১৪ পূর্বাহ্ণ
3494 বার

শরীয়তপুরে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে সুমন পাহাড় (২৩) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাত আড়াইটার সময় উপজেলার পালং ইউনিয়নের ছয়গাঁও সড়কের পাশে শুকুর তালুকদারের মেহগনি বাগানে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় ২ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ইয়াবা, গাঁজা, ককটেল ও মোটর সাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।
পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) শাখা পুলিশ ও পালং মডেল থানা পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারে উপজেলার পালং ইউনিয়নে ছয়গাঁও সড়কের পাশে শুকুর তালুকদারের মেহগনি বাগানে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী নিজেদের মধ্যে মাদক ভাগ-বাটোয়ারা করছে। গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) আজাহার আলীর নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশ ও পালং মডেল থানা পুলিশ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপর ককটেল নিক্ষেপ ও গুলি বর্ষণ করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি চালায়। ১৫ মিনিট গোলাগুলির পর মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটে। স্থানীয়দের উপস্থিতিতে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে একজনের গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ। লাশটি এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী সুমন পাহাড়ের বলে স্থানীয়রা চিহ্নিত করে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য সামসুজ্জামান ও জিয়াউর রহমান আহত হয়। নিহত সুমন পাহাড়ের পরিহিত প্যান্টের ডান পকেট থেকে ৫১ পিচ ইয়াবা ও ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ১ কেজি গাঁজা, ৬টি ককটেল এবং ১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।
শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) আব্দুল মোমেন এ তথ্য জানিয়েছেন।
নিহত সুমন পাহাড় শরীয়তপুর সদর পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের উত্তর বালুচড়া গ্রামের মৃত মো. এসকান্দার পাহাড়ের ছেলে। মাদকদ্রব্য নিজেদের মধ্যে ভাগ-বাটোয়ারা করছে এরকম সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে সদর উপজেলার পালং ইউনিয়নের আটং-ছয়গাঁও সড়কের পাশে জনৈক শুকুর তালুকদারের মেহগনি বাগানে পুলিশের একটি দল অভিযান চালায়।
এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল, গুলি ছুঁড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে গোলাগুলি থেমে গেলে পুলিশ মাদক ব্যবসায়ী সুমন পাহাড়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে ঘটনাস্থল থেকে সুমন পাহাড়ের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।
তিনি জানান, ঘটনাস্থল থেকে ৬টি ককটেল, একটি মটর সাইকেল, এক কেজি গাঁজা ও ৫১ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। নিহত সুমন পাহাড়ের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী, মাদকসহ ১১টি মামলা রয়েছে।
এসপি আব্দুল মোমেন আরো জানান, এ সময় জেলা গোয়েন্দা শাখার এএসআই (নিঃ) সামছুজ্জামান, পালং মডেল থানার কনস্টেবল-২২৭ শামিম হোসেন ও কনস্টেবল-৩৯২ জিয়াউর রহমান আহত হন।
শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আকরাম এলাহী বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে সুমন পাহাড় নামে এক লোককে হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। পরীক্ষা করে দেখি সে আরও আগেই মারা গেছে।
পালং মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুজ্জামান বলেন, সুমন পাহাড় এলাকার কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী, চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ। সুমনের বিরুদ্ধে এলাকায় জনমনে আতঙ্ক ও ত্রাস সৃষ্টিসহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগ রয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে সুমনের বিরুদ্ধে মাদক ও চাঁদাবাজী সহ ১১টি মামলা রয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধিন রয়েছে।

::শেয়ার করুন::
Share on Facebook
Facebook
Share on Google+
Google+
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print
Email this to someone
email

মন্তব্য

comments




  • সর্বশেষ প্রকাশিত  
  • সর্বাধিক পঠিত  

Assign a menu in the Left Menu options.
error: Content is protected !!