আজ শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

জাজিরায় যুবতীর আত্মহত্যা

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় গালমন্দ করায় বাবা-মায়ের সাথে অভিমান করে আফসানা আক্তার (১৯) নামে এক যুবতী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার (৮ জুন) সকালে উপজেলার বিচ্ছিন্ন পদ্মার চরাঞ্চল কুন্ডেচর ইউনিয়নের মল্লিক কান্দি গ্রাম থেকে আফসানার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আফসানা ওই গ্রামের হামেদ মল্লিকের মেয়ে।

জাজিরা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন জানান, এক বছর আগে আফসানার বিয়ে হয়েছিলো। সাত মাস পূর্বে আফসানার ডিভোর্স হয়ে যায়। শুক্রবার (৭ জুন) পাশের বাড়িতে সুন্নতে খাৎনার অনুষ্ঠান ছিলো। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরণের ছেলে-পেলে আসতে পারে ভেবে বাবা-মা মেয়ে আফসানাকে ওই অনুষ্ঠানে যেতে নিষেধ করে। বাবা-মায়ের নিষেধ অমান্য করায় তারা আফসানাকে গালমন্দ করে। রাতে খাওয়া দাওয়া সেরে পরিবারের সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ২টার দিকে আফসানাকে ঘরে না দেখে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুজি করে। খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে বাড়ির আঙ্গিনায় আমড়া গাছের সাথে গলায় প্লাষ্টিকের রশি পেঁচিয়ে অবস্থায় দেখতে পায়। পরিবারের লোকজন আফসানাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করলে ততক্ষনে সে মারা যায়।

খবর পেয়ে নড়িয়া থানা পুলিশ সকালে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। গালমন্দ করার কারণে আফসানা আত্মহত্যা করতে পারে। পরে পরিবারের কারো কোন অভিযোগ না থাকায় উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে পরিবারের পক্ষ থেকে লাশ দাফনের অনুমতি চাওয়া হলে লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়।