আজ বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শরীয়তপুর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের ৪টি ইউনিটের নবগঠিত কমিটি ঘোষনা

রুপক চক্রবর্তী শরীয়তপুর: হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার আওতাধীন শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখার অর্ন্তভুক্ত রুদ্রকর, চিতলিয়া, তুলাসার এবং চিকন্দী ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। ১৬ই জুলাই মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সাংগঠনিক কার্যক্রম আরো গতিশীল করার লক্ষ্য নিয়ে আগামী ১ বছরের জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখার সভাপতি সাদ্দাম হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান শিকদারের সাক্ষরিত ঘোষনা পত্রের মাধ্যমে উপরোক্ত ৪ টি ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়।

রুদ্রকর ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের নব গঠিত কমিটিতে মাহামুদ হোসেন রিপন কে সভাপতি এবং মোঃ সাইফুল ইসলাম কে সাধারন সম্পাদক করে ২০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়। চিতলিয়া ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিতে এনামুল মৃধা কে সভাপতি এবং আল মাহমুদ লালন কে সাধারন সম্পাদক করে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়। তুলাসার ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিতে মোঃ দেলোয়ার হোসেন ফকির কে সভাপতি এবং রাফসান আহম্মেদ কে সাধারন সম্পাদক করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়। চিকন্দী ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিতে মোঃ আল-আমীন মাদবর কে সভাপতি এবং আনোয়ার সরদার কে সাধারন সম্পাদক করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হয়।

শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন খান বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির পতাকা বাহী সংগঠন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অন্যায় করে না এবং অন্যায় কে প্রশয় ও দেয়। আজ যে নতুন নেতৃত্ব এসেছে তারা যার যার অবস্থান থেকে মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাবে। এই কমিটি গুলো তাদের সঠিক নেতৃত্বের মাধ্যমে সোনার বাংলা গড়তে সহযোগিতা করবে।
শরীয়তপুর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান শিকদার বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখার অর্ন্তভুক্ত রুদ্রকর, চিতলিয়া, তুলাসার এবং চিকন্দী ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। ইতিপূর্বে উক্ত ইউনিট গুলোতে যে কমিটি ছিলো তাদের মেয়াদ উর্ত্তীন হওয়ায় এবং দলীয় কর্মকান্ড সঠিক ভাবে পরিচালিত না হওয়ায় কমিটি গুলো বিলুপ্তি ঘোষনা করে নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া সংগঠন। স্বাধীনতার পূর্বে এবং পরে সকল লড়াই সংগ্রামে ছাত্রলীগের গুরুত্ব ছিলো অপরিসীম। আমি বিশ্বাস করি ইউনিয়ন কমিটি গুলোতে যে নতুন নেতৃত্ব এসেছে তারা ছাত্রলীগের সঠিক নীতি আদর্শ বজায় রেখে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।