আজ বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

পদ্মা সেতুতে ১৫তম স্প্যান, দৃশ্যমান ২.২৫ কিলোমিটার

দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে পদ্মা সেতুর কাজ। মঙ্গলবার বসেছে আরও একটি স্প্যান। এ নিয়ে দেশের বৃহত্তম এই সেতুতে মোট ১৫টি স্প্যান বসল। বেলা সাড়ে ১১টায় জাজিরা প্রান্তে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীদের চেষ্টায় সফলভাবে ২৩ ও ২৪ নং পিলারের ওপর বসানো হয় স্প্যানটি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার মুন্সীগঞ্জের মাওয়ার কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ৩ হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটি শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তের উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু নদীর বিভিন্ন স্থানে চর পড়ায় স্প্যানটি বসাতে সমস্যার সৃষ্টি হয়। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ১৫০ মিটার লম্বা ও ১৩ মিটার প্রস্থের বিশাল স্প্যানটি ক্রেন দিয়ে ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারের ওপর উঠানো হয়। স্প্যানটি বসানোর ফলে সেতুর ২ হাজার ২৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো। এই স্প্যান জোড়া দিয়েই পদ্মা সেতু তৈরি হবে। পদ্মা সেতুর পাশাপাশি চলছে রেলের কাজ ।

ADVERTISEMENT
Padma-2

পদ্মা সেতুর প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, এ পর্যন্ত মূল পদ্মা সেতুর ৭৪ শতাংশ এবং সার্বিক ৮৪ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। বহুল আলোচিত পদ্মা সেতু প্রকল্পের যাত্রা শুরু হয় ২০০৭ সালে। রেলপথ সংযুক্ত করে ২০১১ সালের ১১ জানুয়ারি প্রথম দফায় সেতুর ব্যয় সংশোধন করা হয়। প্রকল্পের বর্তমান ব্যয় ৩০ হাজার কোটি টাকার বেশি। মূল সেতু নির্মাণের দায়িত্বে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন কোম্পানি। নদীশাসনের কাজ করছে চীনের আরেক প্রতিষ্ঠান সিনোহাইড্রো কর্পোরেশন। জাজিরা ও মাওয়া দুই প্রান্তে টোল প্লাজা, সংযোগ সড়ক, অবকাঠামো নির্মাণ করছে দেশীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।