আজ সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সাংসদ অপু’র অনুপ্রেরণা, জাজিরায় কৃষকের পাকাধান কেটে দিল ছাত্রলীগ

বিশ্ব মহামারীর এই ক্রান্তিলগ্নে করোনার ভয়াল গ্রাসে আক্রমনিত জাতির এই দুঃসময়ে প্রকৃতির ধারাবাহিকতায় মাঠে পেকে গেছে কৃষকের মাথার ঘাম পায়ে ফেলে কষ্ট করে উৎপাদনকৃত ধানঁ। কিন্তু ফসল ঘরে তুলতে শ্রমিক ও আর্থিক সংকটে ভুগছে কৃষকরা। কৃষকের ঘাম ঝাড়ানো একটি ধানঁ যাতে নষ্ট না হয়, সেই লক্ষ্যে কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বাংলাদেশের বহু স্থানে কৃষকের পাশে এসে দাড়িয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

শরীয়তপুরেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ও শরীয়তপুর-১ সাংসদ ইকবাল হোসেন অপুর অনুপ্রেরণায় “কৃষক বাঁচলে বাঁচবে দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ” এই স্লোগানকে সামনে
কৃষক বা কৃষানীর পাকাধান কেটে ঘরে তুলে দিতে কলম রেখে কাচিঁ হাতে নিয়ে কৃষকের পাশে এসে দাড়িয়েছে বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার আওতাধীন জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগ। আজ সোমবার (১৮ই মে) ভোর ৬টা থেকে সকাল ১০টা
পর্যন্ত শরীয়তপুর জেলা ছাত্রলীগের উপস্থিতি ও দিকনির্দেশনায়, জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জাজিরা উপজেলা বড়কান্দি ইউনিয়নের মালেক মিয়া নামক অসহায় কৃষকের ৩২শতাংশ জমির পাকাধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়া হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি ফাহাদ হোসেন তপু, শরীয়তপুর জেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মহসিন মাদবর, যুগ্ম আহবায়ক রাশেদুজ্জামান রাশেদ, জেলা ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান শাওন,
জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল বেপারী, সাধারন সম্পাদক হৃদয় মাদবর, জাজিরা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রানা বেপারী, জাজিরা পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ ইলিয়াস মুন্সী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সজীব বেপারী, জেলা ছাত্রলীগের আদনান শামীম, অভি, বড় কান্দি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহীন খালাসি সহ জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ সহ জাজিরা উপজেলা ছাত্রলীগের আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিটের নেতা ও কর্মীবৃন্দ।