আজ বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

৬ নারী ধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতার দোষ স্বীকার

শরীয়তপুর নিউজ: প্রতারণা ও ভয় ভীতি দেখিয়ে ছয় নারীকে ধর্ষণ এবং ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার আলোচিত মামলায় আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরিফ হাওলাদার।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুজাহিদুল ইসলামের কাছে ধর্ষণের অপরাধ স্বীকার করে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন আরিফ।

ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামিকে থানায় আনার পর থেকেই ধর্ষণ ও ভিডিও ধারনের কথা স্বীকার করে। আদালতে বিচারকের কাছে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে অপরাধ স্বীকার করেছে। তাই আসামিকে রিমান্ডে নেয়ার প্রয়োজন হয়নি। আদালতের নির্দেশে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ভেদরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের (বহিষ্কৃত) সাধারণ সম্পাদক আরিফ হাওলাদার গোপনে ছয় নারীর আপত্তিকর ছবি ভিডিও করে। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে তাদের ধর্ষণ করে। আবার এসব ধর্ষণের চিত্র গোপনে মোবাইলে ধারণ করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী এক গৃহবধূ গত ১১ নভেম্বর ভেদরগঞ্জ থানায় মামলা করেন। এর পরপরই জেলা ছাত্রলীগ তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে। দীর্ঘ দেড় মাস পলাতক থাকার পর মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে জেলার গোসাইরহাট উপজেলার সাইখা ব্রিজের ওপর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়