আজ শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শরীয়তপুরে চারদফা দাবীতে কর্মবিরতি বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের

“রোগ প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম” স্লোগানকে নিয়ে টেকনিক্যাল পদ মর্যাদা ও বেতন স্কেলসহ ৪ দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন করছেন বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখাসহ শরীয়তপুর জেলা।
মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) সকাল ১০ টা থেকে ৪ দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন করছেন জেলার ৬টি উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয় প্রাঙ্গণে।
দাবীগুলো হলো, বেতন স্কেলসহ টেকনিক্যাল পদ মর্যাদা দিতে হবে, মাঠ/ভ্রমণ ভাতা ও ঝুঁকিভাতার মূল বেতনের ৩০ ভাগ হারে দিতে হবে, প্রতি ছয় হাজার জনগোষ্ঠীর জন্য ১ জন করে স্বাস্থ্য সহকারী দিতে হবে ও ১০ ভাগ পোষ্য কোটা প্রবর্তন করতে হবে।
এ সময় বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আমির হোসেন, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এসএম মোক্তার হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক মিয়া, সদস্য এনামুল হক, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি খলিলুর রহমান হাওলাদার, আতাউর রহমান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আমির হোসেন বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগের সফলতা অর্জনের মূল কারিগর স্বাস্থ্য সহকারীরা। আমরা টেকনিক্যাল কাজ করি। আমাদের দাবীর কথা ১৯৯৮ সালের ৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষনা দিয়েছিলেন। কিন্তু আমাদের দাবীগুলো আজও বাস্তবায়ন হয়নি। বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কর্মবিরতি অব্যাহত রাখব।