আজ বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শরীয়তপুর উলামা পরিষদ, ঢাকা’র ইফতার মাহফিল

শরীয়তপুর উলামা পরিষদ, ঢাকা শাখা’র উদ্যোগে ‘আমাদের শরীয়তপুর; আমাদের ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (০৫ জুন) রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ বাসমতি রেষ্টুরেন্টে এ আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে রাজধানীর মাদরাসা-মসজিদ ও বিভিন্ন দ্বীনী খেদমতে নিয়োজিত শরীয়তপুরের ওলামায়ে কেরাম একত্রিত হন।
উলামা পরিষদ ঢাকার সভাপতি ও কামরাঙ্গীরচর নূরিয়া মাদরাসার শিক্ষক মুফতি আকরাম হুসাইনের সভাপতিত্বে প্রধান মেহমান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- শরীয়তপুর উলামা পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা হাফেজ মাওলানা আব্দুল কাদির। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- উলামা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুফতি শফিউল্লাহ খান। প্রধান আলোচক ছিলেন- রাজধানীর তাতীবাজার মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা খন্দকার মুশতাক আহমাদ।
বিশেষ অতিথি ও আলোচেক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উলামা পরিষদের উপদেষ্টা মালিবাগ জামিয়ার মুফতি ও মুহাদ্দিস মুফতি আব্দুস সালাম, মুন্সীগঞ্জের নিমতলী মাদ্রাসার মাওলানা জিয়াউল হক কাসেমী, আবু বকর সিদ্দীক রাযি. কওমিয়া মাদরাসা, উত্তরখান ঢাকার মুহতামিম হাফেজ মাওলানা নজরুল ইসলাম, ঐতিহাসিক বুড়িরহাট কেন্দ্রীয় মসজিদ শরীয়তপুরের খতীব মাওলানা শাব্বীর আহমাদ উসমানী, দারুল ইফতা ওয়াল ইরশাদ মুহাম্মদপুর ঢাকার পরিচালক মুফতি আবুল হাসান শরীয়তপুরী, লেখক- গবেষক ও জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়ার মুহাদ্দিস মুফতি ইলিয়াছ কাসেমী, জামিয়া মুনাওয়ারাহ ঢাকার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল মুফতি আফজাল হুসাইন, আলী রাযি. মাদরাসা ঢাকার প্রিন্সিপাল মাওলানা আলী আজাদ সাকাফী, দারুল উলূম মহিলা মাদরাসা কামরাঙ্গীরচর, ঢাকার মুহতামিম মুফতি মোশাররফ হুসাইন, জামিয়া ইলিয়াছিয়া হাজারীবাগ, ঢাকার আমীনুত তা’লীম মুফতি মনসূরুল হক, শরীয়তিয়া দারুল ঊলূম মাদরাসা ঢাকার মুহতামিম মাওলানা রমজান আলী, জামিয়া ইসলামিয়া বায়তুন নূর সায়েদাবাদ ঢাকার মুহাদ্দিস মুফতি মোস্তফা কাসেমী, মাকতাবাতুল হায়াতের সম্পাদক ও পরিচালক মুফতি আখতারুজ্জামান, মাওলানা মাজহারুল ইসলাম হাফেজ মৌলভী মুরশিদুল আলম, মাওলানা ইসহাক ফরীদি, মুফতি আশরাফুজ্জামান, আলীনগর যুব সংঘ কামরাঙ্গীরচর ঢাকার সভাপতি জনাব মোঃ আবুল হাসান প্রমূখ।
শরীয়তপুর উলামা পরিষদ ঢাকার সিনিয়র সহ সভাপতি মাওলানা সাইফুল্লাহ ও সেক্রেটারী মাওলানা আবদুল গাফফার এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, শরীয়তপুর উলামা পরিষদ পুরো শরীয়তপুর জেলার মানুষের প্রাণের সংগঠন। সকলের আস্থার একটি প্লাটফর্ম। সংগঠনের উদ্যোগে ইতোমধ্যে শরীয়তপুরে ধর্মীয়, সামাজিক ও আর্ত মানবতার সেবামূলক অনেক কাজ হয়েছে। বেশকিছু কাজ চলছে। এ সংগঠনের কার্যক্রমকে অনুসরণ করে দেশের বিভিন্ন জেলায় ইতিমধ্যে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা চাই, এর মাধ্যমে শরীয়তপুর পূর্ণ শরীয়তের উপর প্রতিষ্ঠিত হবে এবং এখানে প্রচলিত বিদআতি ও কুসংস্কারমূূলক সকল কর্মতৎপরতা বন্ধ হবে ইনশাআল্লাহ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় সভাপতি মুফতি শফিউল্লাহ খান বলেন, কাজকে ব্যপক করার লক্ষ্যে কেন্দ্র থেকে গত বছর ঢাকা কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আমরা দেখছি, এ কমিটি শরীয়তপুরের মানুষের বিশেষত উলামায়ে কেরামের মাঝে ঐক্য-সৌহাদ্য-সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য সর্বাত্মক মেহনত করে যাচ্ছে। তিনি ঢাকা শাখার কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং ঢাকার কার্যক্রমকে আরো ব্যপক করার লক্ষ্যে সাংগঠনিক প্রক্রিয়া মজবুত রেখে দীর্ঘমেয়াদী ও সুপরিকল্পিত কর্মসূচী গ্রহণ করার আহবান জানান।
সভাপতির ভাষণে ঢাকা শাখা সভাপতি মুূফতি আকরাম হুসাইন বলেন, আমাদের মাহফিলে জেলার সকল শীর্ষ আলেমদের উপস্থিতি আমাদের জন্য বিরাট নিয়ামত ও আনন্দের বিষয়। আমরা চাই, মুরুব্বীদের সার্বিক নির্দেশনায় সর্বদা কাজ চালিয়ে যেতে। ইতোমধ্যেই আমরা জরিপ করে দেখেছি, ঢাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শরীয়তপুর জেলার শিক্ষার্থীরা ভালো রেজাল্ট করছে। আমরা তাদের তালিকা করে অচিরেই বোর্ডস্টা-কারী কৃতি ছাত্রদের সংবর্ধনা ও পুরস্কারের ব্যবস্থা করবো ইনশাআল্লাহ।
প্রধান মেহমান হাফেজ মাওলানা আব্দুল কাদির সাহেবের দোয়া ও মুনাজাতের মাধ্যমে আলোচনা সমাপ্ত হয়।