আজ বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

জেড এইচ সিকদার বিশ্ববিদ্যালয় ল সোসাইটির নির্বাচনে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে লড়বেন রুপক চক্রবর্তী

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা: আসন্ন জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগ ল সোসাইটি পরিষদের বার্ষিক নির্বাচনে ভাইস প্রেসিডেন্ট (ভিপি) পদে লড়াই করছেন জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগ ১৪ তম ব্যাচের ছাত্র রুপক চক্রবর্তী । আগামী ২৭ শে এপ্রিল সোমবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক উৎসব মূখর পরিবেশ তৈরি হয়েছে। নির্বাচনে ভোটার অধিকার প্রযোগ করতে পারবে আইন বিভাগে অধ্যায়নরত সকল শিক্ষার্থীবৃন্দ। ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে রুপক চক্রবর্তীর সাথে একই পদে লড়াই করছেন আরো ৪ জন।

রুপক চক্রবর্তী শরীয়তপুর জেলার সদর উপজেলার শৌলপাড়া ইউনিয়নের গয়ঘর গ্রামের রুহিদাস চক্রবর্তী ও রুমারানী চক্রবর্তী জেষ্ঠ্য পুত্র, দুই ভাই মধ্যে রুপক বড়। তিনি পড়াশোনার পাশাপাশি সাংবাদিকতার সাথে সম্পৃক্ত। তিনি জাতীয় দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার শরীয়তপুর প্রতিনিধি, জেটিভির শরীয়তপুর প্রতিনিধি, দৈনিক বর্তমান এশিয়া পত্রিকার সিনিয়র ষ্টাফ রির্পোটার। রুপক চক্রবর্তী নিরাপদ সড়ক চাই নিসচা এর শরীয়তপুর জেলা শাখার প্রচার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করিতেছেন। রুপক চক্রবর্তী ছাত্র পরিষদ শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক। এছাড়া তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীর সংগঠনের সাথে জড়িত এবং সেই প্রতিষ্ঠান গুলোর উন্নয়নের জন্য সর্বদা কাজ করে যাচ্ছেন।

রুপক চক্রবর্তী ২০০৮ সালে সুনামের সহিত ১১ নং গয়ঘর সরকারি প্রাথমিক থেকে পি এস সি পরীক্ষায় জি পি এ ৫ এবং বৃত্তি প্রাপ্ত হয়েছেন, এরপর তিনি শরীয়তপুর শহরে পালং তুলাসার গুরুদাস সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১১ সালে জি এস সি এবং ২০১৪ সালে বিজ্ঞান বিভাগ হতে সুনামে সাথে এস এস সি পরীক্ষায় উত্তীর্ন হয়েছেন। তারপর তিনি শরীয়তপুর সরকারী কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ হতে ২০১৬ সালে সাফল্যর সহিত এইচ এস সি পাশ করেন। বর্তমানে তিনি জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ৩য় বর্ষে অধ্যায়নরত আছেন।

রুপক চক্রবর্তী বলেন, আমি সকলে আশির্বাদ মাথায় নিয়ে আসন্ন জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগ ল সোসাইটি পরিষদের নির্বাচনে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন করতেছি। ইতিমধ্যে নির্বাচন কে কেন্দ্র করে আইন বিভাগের আনন্দঘন পরিবেশ তৈরি হয়েছে। আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিকট হতে আমি ব্যাপক পরিমান সমর্থনের সাড়া পেয়েছি। আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।
আমি যদি ল সোসাইটির ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে পারি তাহলে সকলকে সাথে নিয়ে আইন বিভাগের উন্নয়ন এবং শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবী আদায়ের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাবো।