দুই কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান হচ্ছে পদ্মা সেতু

109

আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আজ (বৃহস্পতিবার) বসতে যাচ্ছে পদ্মা সেতুর ১৪তম স্প্যান। নদীর মাঝখানে আগের দুটি স্প্যানের সঙ্গে বসানো হবে নতুন এ স্প্যানটি। এর মাধ্যমে দুই কিলোমিটারের (২১০০ মিটার) বেশি দৃশ্যমান হবে পদ্মা সেতু।

মাওয়ার দিকে মাঝনদীতে ৩ নম্বর মডিউলের মধ্যে বসানো আছে দুটি স্প্যান। এবার সেগুলোর সঙ্গেই জোড়া দিয়ে বসানো হবে ১৪ নম্বর স্প্যান। ১৪ ও ১৫ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হবে স্প্যানটি।

শেষ চারটি স্প্যান বসেছে খুব দ্রুত। কখনো ১০ দিন, কখনো ১৫ দিন বিরতিতে বসেছে এক একটি স্প্যান। এর আগে ২৫ মে সর্বশেষ ১৩তম স্প্যানটি বসানো হয়।

২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর প্রথম স্প্যান, ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি ৩৮ ও ৩৯ নম্বর পিলারের ওপর দ্বিতীয় স্প্যান, ১১ মার্চ ৩৯ ও ৪০ নম্বর পিলারের ওপর তৃতীয় স্প্যান, ১৩ মে ৪০ ও ৪১ নম্বর পিলারের ওপর চতুর্থ স্প্যান, ২৯ জুন ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের ওপর পঞ্চম স্প্যান, ২০১৯ সালের ২৩ জানুয়ারি ৩৬ ও ৩৭ নম্বর পিলারের ওপর ষষ্ঠ স্প্যান ও ২০ ফেব্রুয়ারি ৩৫ ও ৩৬ নম্বর পিলারের ওপর সপ্তম স্প্যান, মাওয়া প্রান্তের ৪ ও ৫ নম্বর পিলারের ওপর অষ্টম স্প্যান, ২১ মার্চ জাজিরা প্রান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর পিলারের ওপর নবম স্প্যান, ১০ এপ্রিল মাওয়া প্রান্তে ১৩ ও ১৪ নম্বর পিলারের ওপর দশম স্প্যান, ২৩ এপ্রিল জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে ৩৩ ও ৩৪ নম্বর পিলারের ওপর ১১তম স্প্যান, ৬ মে জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে ২০ ও ২১ নম্বর পিলারের ওপর ১২তম স্প্যানটি বসানো হয়।

জানা গেছে, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মূল সেতুতে মোট ২৯৪টি পাইল আছে, যার মধ্যে নদীতে ২৬২টি পাইল। মূল সেতুর ২৯৪টি পাইলের মধ্যে ইতোমধ্যে ২৪৭টি পাইলের কাজ শেষ হয়েছে। ২৯৪টি পাইলে মোট ৪২টি পিলার। সেতুতে মোট স্প্যান বসবে ৪১ টি।

::শেয়ার করুন::
Share on Facebook
Facebook
Share on Google+
Google+
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print
Email this to someone
email

মন্তব্য

comments