আজ বৃহস্পতিবার | ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
| ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৪ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী | সময় : রাত ১০:২০

মেনু

শরীয়তপুরে সাংবাদিক ইশ্রাফিলের ওপর হামলার প্রতিবাদ!!

শরীয়তপুরে সাংবাদিক ইশ্রাফিলের ওপর হামলার প্রতিবাদ!!

মঙ্গলবার, ৩০ জুলাই ২০১৯
৭:৩৯ অপরাহ্ণ
48 বার

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক, শরীয়তপুর অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা ও ডিবিসি টেলিভিশনের শরীয়তপুর প্রতিনিধি বিএম ইশ্রাফিলের ওপর পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় বাস শ্রমিক কর্তৃক সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে শরীয়তপুরে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) বিকাল ৫টায় শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্ত্বরে এই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম শরীয়তপুর জেলা শাখা ও শরীয়তপুর অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন যৌথভাবে এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুরের সিনিয়র সাংবাদিক কাজী নজরুল ইসলাম, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি এমএ ওয়াদুদ মিয়া, শরীয়তপুর অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যাড. মুরাদ হোসেন মুন্সী, সাধারণ সম্পাদক ছগির হোসেন ও হামলার শিকার সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিল প্রমূখ।

প্রতিবাদ সভায় বক্তারা সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানান। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।

প্রতিবাদ সভায় শরীয়তপুরের সিনিয়র সাংবাদিক কাজী নজরুল ইসলাম বলেন, শরীয়তপুরের সাংবাদিকরা বিভিন্ন সময় পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন। আমি নিজেও সন্ত্রাসী ও দূর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার করতে গিয়ে একাধিক হামলা ও হামলার শিকার হয়েছি। আজকে শরীয়তপুরে সাংবাদিকদের শক্তিশালী কোন সংগঠন না থাকায় সন্ত্রাসীরা সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালানোর দুঃসাহস দেখায়। আমি প্রশাসনকে অনুরোধ করবো সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিলের ওপর যারা সন্ত্রাসী হামলা করেছে তাদের আইনের আওতায় আনা হোক যাতে ভবিষ্যতে শরীয়তপুরের সাংবাদিকরা তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার না হতে হয়।

শরীয়তপুর অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যাড. মুরাদ হোসেন মুন্সী বলেন, যে সাংবাদিকরা অন্যের তথ্য সংগ্রহ করে প্রচার করে আজকে সেই সাংবাদিকরাই সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে তাদের প্রতিবাদ সভা করতে হচ্ছে। আজকে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সভার নিউজ কে করবে। আমি পেশাগত পালনের সময় বিএম ইশ্রাফিলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে দ্রুত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

গত সোমবার (২৯ জুলাই) বেলা ১২টায় জেলা শহরের কোর্ট সংলগ্ন পুলিশ বক্সের কাছে ব্যবাসয়ী ও ঠিকাদার রুবেল খানের মেসার্স আর.কে মরটস নামে একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সার শো-রুম উদ্ধোধন করার কথা ছিলো স্থানীয় সাংসদ ইকবাল হোসেন অপুর। এ খবর পেয়ে শো-রুমটি উদ্বোধনের পূর্ব মুহুর্তে পরিবহন শ্রমিকরা সেখানে অতর্কিত হামলা চালিয়ে শো-রুম ও শো-রুমে থাকা ৮টি সিএনজি অটো রিক্সা ভাংচুর করে। এই ভাংচুরের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করতে গেলে পরিবহন শ্রমিক নেতা ফারুক চৌকিদারের নির্দেশে বাস শ্রমিকরা সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় এবং তার ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিল গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই শ্রমিক নেতা ফারুক চৌকিদারকে হুকুমের আসামী করে ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে পালং মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন সাংবাদিক বিএম ইশ্রাফিল।

::শেয়ার করুন::
Share on Facebook
Facebook
Share on Google+
Google+
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print
Email this to someone
email

মন্তব্য

comments




শরীয়তপুর হানাদার মুক্ত দিবস আজ
১১ ডিসেম্বর ২০১৯ 306 বার

  • সর্বশেষ প্রকাশিত  
  • সর্বাধিক পঠিত