মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০ ইং, ২০ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০ ইং, ২০ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০ ইং

নড়িয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ৫০বাড়ি পদ্মার ভাঙ্গনে বিলীন

নড়িয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ  ৫০বাড়ি পদ্মার ভাঙ্গনে বিলীন
নড়িয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ৫০বাড়ি পদ্মার ভাঙ্গনে বিলীন

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা ইউনিয়নে বসাকের চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক তলা ভবনসহ ৫০টি বাড়ি-ঘর পদ্মা নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড জিও ব্যাগ ফেলা বন্ধ করে দেওয়ায় আতংকিত হয়ে পড়েছে নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা ইউনিয়নবাসী।
২৯ জুলাই বুধবার সকালে এই ভবনটি পদ্মা নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে যায়। এছাড়াও বন্যা শুরু হওয়ার পর থেকে নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা ইউনিয়নে এই পর্যন্ত ৫০টি পরিবারের বাড়ি-ঘর পদ্মার ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে।
নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রুপা রায় জানায়, ‘স্কুল ভবনটি ঝুঁকির মধ্যে ছিল। তবে, বিভিন্ন কারণে স্কুলটি সেখান থেকে সরানো হয়নি। পদ্মা নদীর তীব্র স্রোতের কারণে ভবনটি ভেঙে পড়েছে। এছাড়াও চরআত্রা ইউনিয়নের ৫০টি পরিবারের বাড়ি-ঘর পদ্মা নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকারি ভাবে ত্রান সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।
শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবিব বলেন, ওই এলাকায় নদীর ভাঙন রোধে জিও ব্যাগ ফেলেছি। কিন্তু, পদ্মার তীব্র স্রোতের কারণে সবকিছু ভেসে গেছে। ঈদের কারণে শ্রমিক কম। ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ ফেলা হবে।
এ ছাড়া বর্তমানে বিদ্যালয়ের আরো একটি ভবন ও শতাধিক বাড়ি ঘর পদ্মার ভাঙনের হুমকিতে আছে বলে স্থানীয়রা জানায়।

মন্তব্য

comments

শরীয়তপুর নিউজে প্রকাশিত কোন তথ্য, ছবি, রেখচিত্র, আলোকচিত্র ও ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যাবহার করা নিষেধ!!


error: Content is protected !!