আজ শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

শরীয়তপুরে অর্থের লোভে বন্ধুকে খুন, গ্রেফতার-২

শরীয়তপুর জেলা মাইজ ভান্ডারীর মুরিদ কমিটির সভাপতি ও কাজীর হাট বন্দরের কাঠ ব্যবসায়ী উজ্জ্বল মোল্লকে হত্যার মূল আসামী মিঠুন হালদার এবং শিমুল হালদারকে গ্রেফতার করেছে জাজিরা থানা পুলিশ।

আসামীরা উজ্জ্বল মোল্লাকে গলা কেটে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিমূলক স্বীকারোক্তি দিয়েছে। অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নেয়ার লোভে এ হত্যাকান্ড করা হয়েছে। এ কথাটি নিশ্চিত করেছেন জাজিরা থানা পুলিশ।

পুলিশ আরও জানায়, আসামী মিথুন হালদার এবং শিমুল হালদার সাথে কাঠ ব্যবসায়ী উজ্জ্বল মোল্লার অনেক আগে থেকেই পরিচয় ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্কের কারণে বৃহস্পতিবার রাতে তার দোকানে ঘুমাতে আসে। আর তারা অতিরিক্ত টাকার লোভে তাকে হত্যা করেছে।
উজ্জ্বল মোল্লার কর্মচারী রাজিবের সাথে আলাপ কালে জানা যায়, জাজিরা উপজেলার কাজির হাট বন্দরের কাঠ ব্যবসায়ী উজ্জ্বল মোল্লা বৃহস্পতিবার রাতে তার দোকানে ঘুমিয়ে ছিলেন। ঐ রাতে উজ্জ্বল মোল্লা তার কর্মচারী রাজিবকে ডেকে বললেন আজ তার দুইজন বন্ধু আসবে তাই তুমি পাশের মনির মাদবরের দোকানে ঘুমাবে। সেই মোতাবেক রাজিব পাশের মনির মাদবরের দোকানে ঘুমাতে গেলে উজ্জ্বল মোল্লার দুই বন্ধু আসে। তারা উজ্জ্বল মোল্লাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পরদিন শুক্রবার নিহত উজ্জ্বল মোল্লার বাবা আফজাল মোল্লা বাদী হয়ে অজ্ঞাত কয়েকজন ব্যক্তিকে আসামী করে জাজিরা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আর এ হত্যাকান্ডের ১৪ দিন পর পুলিশ মোবাইল প্রযুক্তির মাধ্যমে খুনিদের অবস্থান শনাক্ত করে তাদেরকে গ্রেফতার করেন।

পুলিশ আসামী দু’জনকে আদালতে পাঠানোর পর অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুজাহিদুল ইসলামের নিকট তারা খুনের কথা স্বীকার করেন। তাদের ধারণা ছিল উজ্জ্বলের নিকট ঐ দিন অনেক টাকা ছিল। হত্যাকান্ডের পর হত্যাকারীরা স্টিলের আলমারী ভেঙ্গে মাত্র ১২ হাজার টাকা পেয়েছে বলে স্বীকার করেছে। এরপর আদালতের বিচারক তাদেরকে শরীয়তপুর জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

মন্তব্য

comments

শরীয়তপুর নিউজে প্রকাশিত কোন তথ্য, ছবি, রেখচিত্র, আলোকচিত্র ও ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যাবহার করা নিষেধ!!