শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০ ইং, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০ ইং, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০ ইং

উপ-নির্বাচন: কাঁচিকাটা ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত

উপ-নির্বাচন: কাঁচিকাটা ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত

পদ্মা নদী বেষ্টিত চরাঞ্চলে অবস্থিত ভেদরগঞ্জ উপজেলার কাঁচিকাটা ইউনিয়নটি। নদী ভাঙনের কারনে ইউনিয়নটির কিছু ওয়ার্ড নদীতে ভেঙে যায়। সিমানা বিরোধ ও মামলার জটিলতার কারনে ২০১৫ সালে ইউনিয়নটিতে নির্বাচন হয়নি। সিমানা বিরোধ ও মামলার জটিলতা কাটিয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। তবে নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী একজন হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মাস্টার আবুল হাসেম দেওয়ান। এই ইউনিয়নে তিনি তৃতীয়বারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন।
এছাড়া ১ নং ওয়ার্ডেও প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেম্বার নির্বাচিত হন আলম দেওয়ান। তাছাড়া ৮টি ওয়ার্ডে ৮জন মেম্বর ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৩ জন নির্বাচিত হন।
শরীয়তপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেক মো. জালাল উদ্দিন জানায়, ইউনিয়নটিতে গত ২২ জানুয়ারি তফসিল ঘোষণা হয়, ১০ ফেব্রুয়ারি প্রত্যাহার ও ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোট গ্রহণ শুরু হয়। কাঁচিকাটা ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ৩০৮ জন। এতে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৭ হাজার ৫৫৪ জন ও নারী ভোটার সংখ্যা ৬ হাজার ৭৫১ জন।
তিনি বলেন, নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী একজন হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন মাস্টার আবুল হাসেম দেওয়ান।
এছাড়া ১ নং ওয়ার্ডেও প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেম্বার নির্বাচিত হন আলম দেওয়ান। তাছাড়া ৮টি ওয়ার্ডে ৮জন মেম্বার ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৩জন নির্বাচিত হন।
কাঁচিকাটা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে ভোটার এসএম মইনুল আলম, সেলিম বেপারী, হারেসুর রহমান বলেন, ভোট দিয়ে ভালো লাগছে। কোন রকম বাঁধা ছিল না, শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিতে পেরেছি। ভোটারের উপস্থিতিও ভালো ছিল।
তারা বলেন, আমাদের ইউনিয়নটিতে রাস্তা-ঘাট, শিক্ষাসহ সবদিক থেকে অবহেলিত। আমরা চাই যারা নির্বাচিত হবেন, তারা এলাকার উন্নয়ন করবেন।
সখিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক জানান, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহন হয়েছে। কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ১০টি কেন্দ্রে ১৩৪ জন পুলিশ ও পর্যাপ্ত আনসার-ভিডিপি মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া নির্বাচনে মোবাইল ও টহল ৬টা টিম কাজ করেছে।

মন্তব্য

comments

শরীয়তপুর নিউজে প্রকাশিত কোন তথ্য, ছবি, রেখচিত্র, আলোকচিত্র ও ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যাবহার করা নিষেধ!!


error: Content is protected !!