গোসাইরহাটে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফজলুর রহমান বিজয়ী

408

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীক নিয়ে ২২ হাজার ৪৭৯ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ফজলুর রহমান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সৈয়দ নাসির উদ্দিন নৌকা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২১ হাজার ৫৫৮।

রবিবার ভোটগ্রহণ শেষে ফজলুর রহমানকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। গোসাইরহাট রিটার্নিং অফিসার মো. আলমগীর হুসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয় ভোটগ্রহণ। নির্বাচনকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম।
সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ তালুকদার, জাজিরা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল জাব্বার আকন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার, নড়িয়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান জাকির বেপারী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা মোস্তফা, ডামুড্যা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ গোলন্দাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা খানম লাবনি, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মো. আবুল খায়ের, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম নির্বাচিত হয়েছেন।

শরীয়তপুরে ছয়টি উপজেলার মধ্যে পাঁচটি উপজেলায় নির্বাচনের আগে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হলেন শরীয়তপুর সদর উপজেলায় আবুল হাসেম তপাদার, জাজিরা উপজেলায় মোবারক আলী শিকদার, নড়িয়া উপজেলায় একেএম ইসমাইল হক, ভেদরগঞ্জ উপজেলায় হুমায়ুন কবির মোল্যা ও ডামুড্যা উপজেলায় আলমগীর হোসেন মাঝি।

এছাড়া শরীয়তপুর সদর উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সামিনা ইয়াছমিন ও ভেদরগঞ্জ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে আব্দুল মান্নান বেপারী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আকলিমা আক্তার লিপি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

::শেয়ার করুন::
Share on Facebook
Facebook
Share on Google+
Google+
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print
Email this to someone
email

মন্তব্য

comments