আজ সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

শরীয়তপুরে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ

বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ধর্মীয় সম্প্রতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের উদ্যোগে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায়, জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর আয়োজনে ধর্মীয় সম্প্রীতির বন্ধন ও সচেতনতামূলক দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (১৭ মে) শরীয়তপুর সদর উপজেলা মডেল মসজিদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মুহাম্মাদ তালুত এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, শরীয়তপুর জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এর উপপরিচালক মুহাম্মদ আশ্রাফ আলী।
বিশেষ ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ বদিউজামান, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর পৌরসভা মেয়র এ্যাড পারভেজ রহমান জন।
শরীয়তপুরে ধর্মীয় সম্প্রীতির বন্ধন ও সচেতনতা মূলক দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান বলেছেন, ধর্মীয় সম্প্রীতি রক্ষার মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এঁর স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণে এগিয়ে যাবো। ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা মূলক দিনব্যাপি কর্মশালার উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মহামানব সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানুষ হযরত মোহাম্মদ (সঃ) এর নিকট সকল ধর্মের মানুষই নয় সকল মাকলুকাত নিরাপদ ছিল। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামকে ব্যবহার করে কেউ যেন আমাদের দেশের হাজার বছরে ঐতিহ্য ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে সে বিষয়ে আমাদের সজাগ থাকতে হবে।
সভায় বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা পরবর্তীতে ধর্ম নিরপেক্ষ শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বজায় রাখতে আহ্বান জানিয়েছেন। তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বাংলাদেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখার পাশাপাশি ধর্মীয় সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন। আমরা সমাজে মুসলমান-হিন্দু-খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সাথে সম্পর্ক সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য অনুরোধ করছি।